১০ জানুয়ারি বিএনপির কর্মসূচি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ১০ জানুয়ারিতে বিএনপি ঘোষিত বিক্ষোভ-সমাবেশ কর্মসূচির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

8 / 100

তিনি বলেছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভাসিত ১০ জানুয়ারিতে রাজনৈতিক হীন উদ্দেশ্য চরিতার্থ করতেই বিএনপি বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এ কর্মসূচি বাংলাদেশবিরোধী ষড়যন্ত্র ছাড়া আর কিছু নয়।

সোমবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ বিবৃতি দেন। এতে তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির কাছে এক অবিনাশী চেতনার নাম। ঐতিহাসিক ১০ জানুয়ারি আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের ধারাবাহিক ইতিহাসের অনন্য মাইলফলক। এ দিনটিকে বাঙালি জাতি গভীর শ্রদ্ধা ও বিশেষ মর্যাদার সঙ্গে পালন করে আসছে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে বিএনপি কেন বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে? এখানেই তাদের স্বাধীনতাবিরোধী চরিত্র ও বঙ্গবন্ধুর প্রতি বিদ্বেষ ফুটে ওঠে। জাতির পিতাকে হত্যার পর তার খুনিদের বিএনপি সুরক্ষা দিয়েছে, পুনর্বাসিত করেছে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক মেলবন্ধনের ওপর বিএনপির আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠার অর্থই হলো, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে পরাহত করার অপতৎপরতায় লিপ্ত হওয়া। শুধু মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নয়, বঙ্গবন্ধুকন্যা গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের জনগণের কষ্টার্জিত গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার অপচেষ্টার বহিঃপ্রকাশ এই বিক্ষোভ-সমাবেশ কর্মসূচি।

8 / 100
আরও পড়ুন
Loading...