সেরেনাকে থামিয়ে ফাইনালে আজারেঙ্কা

অবসাদ আগে থেকেই চোখ রাঙানি দিচ্ছিল সেরেনা উইলিয়ামসকে। সে সতর্কবার্তাটা ২৩ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম বিজয়ীর সামনে গতকাল শুক্রবার বড় বিপদ হয়েই দেখা দিল। ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কার কাছে ৬-১, ৩-৬, ৩-৬ গেমে হেরে বিদায় নিয়েছেন তিনি। ফলে মার্গারেট কোর্টের ২৪ গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ডে ভাগ বসানোর হাতছানিটা আরো একবার ধরা দিতে দিতেও দিল না সেরেনার কাছে।

অথচ শুরুটা কি দুর্দান্তই না করেছিলেন আমেরিকান এই তারকা! শুরুর সেটে দাঁড়াতেই দেননি সাত বছর পর কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যাম সেমিফাইনাল খেলতে আসা প্রতিপক্ষ আজারেঙ্কাকে। ৩৫ মিনিটেই ৬-১ গেমে জিতে নেন যুদ্ধের প্রথম লড়াইটা।

এক সময়ে গ্র্যান্ড স্ল্যামে সেরেনা-আজারেঙ্কার যুদ্ধ ছিল নিয়মিত দৃশ্য। কিন্তু ২০১৫ উইম্বলডন কোয়ার্টার ফাইনালের পর থেকে বড় শিরোপার চূড়ান্ত পর্যায়ে মুখোমুখি হননি দুজন। এতে আজারেঙ্কার দোষই বেশি। মাঠে-মাঠের বাইরে দুঃসময়ে জর্জরিত তো প্রায় হারিয়েই যাচ্ছিলেন তিনি!

সম্প্রতি যেন সে আজারেঙ্কার পুনর্জন্মই হয়েছে। ‘হারিয়ে যাওয়ার ভয়’ কে জয় করে নতুন করে স্বাধীনতাই যেন উপভোগ করছেন তিনি। তাতে ফ্ল্যাশিং মিডোয় আসার আগে জেতেন ওয়েস্টার্ন সাউদার্ন ওপেন, দারুণ ছন্দে আছেন চলতি ইউএস ওপেনেও।

তারই দেখা মিলল শুক্রবারের সেমিফাইনালেও। শেষ দুই সেটে ৬-৩, ৬-৩ গেমে জিতে দারুণ এক প্রত্যাবর্তনের গল্পই লিখে বসেন তিনি। তাতে বাড়ে সেরেনার অপেক্ষা, অন্তত আরো এক মাসের জন্য।

তবে বেলারুশীয় খেলোয়াড়টির জন্য এটা অবশ্য বড় একটা স্বস্তিই এই জয়।

ম্যাচ-পরবর্তী প্রতিক্রিয়ায় আশাবাদ জানালেন, তার এ প্রত্যাবর্তনের গল্প অনুপ্রাণিত করবে অন্যদেরও। বললেন, ‘সে গর্তটা থেকে বেরিয়ে আসতে বেশ প্রাণশক্তির প্রয়োজন ছিল আমার, আর কাজটা সহজ ছিল না আদৌ। আশা করছি, নারীদেরকে তাদের স্বপ্নের পেছনে ছুটতে এটা অনুপ্রাণিত করবে, তারা যে কোনো কিছুই করতে পারে।’

আজারেঙ্কার স্বপ্নপূরণের পথে এবার শেষ বাধা নাওমি ওসাকা। আগামীকাল ১৩ সেপ্টেম্বর সেটা টপকে গিয়ে প্রত্যাবর্তনের ষোলকলা নিশ্চিতভাবেই পূরণ করতে চাইবেন দুই বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতা আজারেঙ্কা!

 

আরও পড়ুন
Loading...